১৫ বছর পর মহেশবাবুর সঙ্গে বিয়ের অদেখা ছবির গ্যালারি শেয়ার করলেন নম্রতা শিরোদকর

১৫ বছর পর মহেশবাবুর সঙ্গে বিয়ের অদেখা ছবির গ্যালারি শেয়ার করলেন নম্রতা শিরোদকর
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

১৫ বছর পর মহেশবাবুর সঙ্গে বিয়ের অদেখা ছবির গ্যালারি শেয়ার করলেন নম্রতা শিরোদকর, দেখুন গ্যালারি…

২০০৫ সালে দক্ষিণী তারকা মহেশ বাবু-র সঙ্গে সাত পাকে বাঁধা পড়েছিলেন অভিনেত্রী নম্রতা শিরোদকর। বিয়ের পর থেকে দুই সন্তান ও স্বামী মহেশবাবুর সঙ্গে সুখে দাম্পত্য জীবন কাটাচ্ছেন নম্রতা। (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

২০০০ সালে প্রথম মহেশ বাবুর সঙ্গে আলাপ হয় নম্রতা শিরোদকারের। ২০১৫ সালে সাতপাকে বাঁধা পড়েশ মহেশ ও নম্রতা। (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

সম্প্রতি নিজের ইনস্টাগ্রামে বিয়ের গায়ে হলুদের একটি ছবি শেয়ার করেছেন নম্রতা। যেখানে হলুদে মাখা হাসিখুশি চেহারায় ধরা দিয়েছেন অভিনেত্রী। (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

কয়েকদিন আগে ইনস্টাগ্রামে ভক্তদের সঙ্গে লাইভ চ্যাটে বেশকিছু প্রশ্নের জবাব দিয়েছিলেন নম্রতা শিরোদকর। যেখানে এক ভক্তের অনুরোধে হাতে আঁকা ট্যাটুর ছবি পোস্ট করেছিলেন নম্রতা। যেখানে দেবনাগরী ভাষায় মহেশবাবু, ও তাঁর দুই সন্তান, গৌতম ও সীতারর নাম লেখা রয়েছে। (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

আরও পড়ুন:  দিন দিন মোটা হচ্ছেন? খাওয়া কমিয়েও রোগা হওয়া যাচ্ছে না? জানুন উপায়

এক ভক্ত নম্রতাকে জিজ্ঞেস করেন, তিনি কবে জেনেছিলেন যে মহেশ বাবুকে তিনি ভালোবাসেন? উত্তরে নম্রতা বলেন, যখন টানা ৫২ দিন নিউজিল্যান্ডে শ্যুটিং করতে গিয়েছিলেন, তখনই সেকথা বুঝেছিলেন অভিনেত্রী। (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

জানা যায়, দক্ষিণী ছবি ‘ভামসি’র শ্যুটিংয়ে প্রথম আলাপ হয়েছিল মহেশ বাবু ও নম্রতা শিরোদকর-এর। (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

ডেকান ক্রনিক্যাল-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নম্রতা শিরেদকর একবার বলেছিলেন, ”লোকজন বিশ্বাস করে, যে আমি যেটা বলি, মহেশ নাকি সেটাই করে। তবে এটা সত্যি নয়। ও ওর কেরিয়ারের সিদ্ধান্ত নিজেই নেয়। ও লাজুক, ভদ্র, তবে ওর যেটা মন বলে, ও সেটাই করে।” (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

প্রসঙ্গত, ১৯৯৩ সালে মিস ইন্ডিয়া হয়েছিলেন নম্রতা। পরে মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতাতেও ভারতের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন তিনি। ৬ নম্বর স্থানে উঠেওছিলেন। পরে মিস এশিয়া প্যাসিফিক-এর রানার আপ হয়েছিলেন নম্রতা। (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

আরও পড়ুন:  ডায়পার ব্যবহারের পরে শিশুর র‍্যাশের সমস্যা, দূর করার উপায় জেনে নিন

১৯৯৮ সালে ‘যব প্যায়ার কিসিসে হোতা হ্যায়’ ছবিতে সলমন খান, টুইঙ্কেল খান্নার সঙ্গে অভিনয় করেন নম্রতা। পরে যখন ১৯৯৯ সালে তেলুগু ছবি ‘ভামসি’ করেন নম্রতা। সেটা ছিল তাঁর তৃতীয় ছবি। তবে মহেশ বাবু সেই ছবি দিয়ে ডেবিউ করেছিলেন। (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)

‘ভামসি’র সেট থেকেই বন্ধুত্বের শুরু হয়েছিল নম্রতা ও মহেশ বাবুর। ২০০৪ সালে তাঁদের সম্পর্কের কথা প্রকাশ্যে আনেন মহেশ ও নম্রতা। বিয়ের পর সংসারে মন দিয়ে নম্রতা তাঁর ফিল্মি কেরিয়ার থেকে সরে আসেন। (ছবি-ইনস্টাগ্রাম)।
৫০০০+ মজদার রেসিপির জন্য Google Play store থেকে Install করুন “Bangla Recipes” মোবাইল app…. 🙂.মোবাইল app Download Link >>> https://bit.ly/2YsK4MO

বাংলা হেলথ কেয়ার /এসপি