প্রচ্ছদ স্বাস্থ্য খবর

এইডস, হেপাটাইটিস রোধে আসছে সুপার সিরিঞ্জ

113
এইডস, হেপাটাইটিস রোধে আসছে সুপার সিরিঞ্জ
পড়া যাবে: < 1 minute

নোংরা এবং অন্যের ব্যবহৃত সিরিঞ্জ ব্যবহারের কারণে যেসব রোগের সংক্রমণ ঘটে সেসব বন্ধ করার জন্যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বড় ধরনের একটি অভিযান শুরু করেছে।

একটি সিরিঞ্জ একবার ব্যবহারের পর সেটা আবার ব্যবহারের কারণে প্রতি বছর সারা বিশ্বে প্রায় কুড়ি লাখ মানুষ এইচআইভি এবং হেপাটাইটিস ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে থাকে।

এই সংক্রমণ ঠেকাতে আন্তর্জাতিক সংস্থাটি এখন ২০২০ সালের মধ্যে স্মার্ট সিরিঞ্জের ব্যাপক ব্যবহার নিশ্চিত করার চেষ্টা করছে।

এই সিরিঞ্জ একবার ব্যবহারের পর আপনা আপনিই ভেঙে যাবে।

দুষিত সিরিঞ্জ থেকে রোগ সংক্রমণের একটা বড় দৃষ্টান্ত হচ্ছে কম্বোডিয়ার রোকা নামের একটি গ্রাম, যেখানে মাত্র একজন স্বাস্থ্যকর্মী একই সিরিঞ্জ বার বার ব্যবহার করার ফলে এইচআইভি ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছিলেন ২৭০ জনেরও বেশি লোক। তাদের মধ্যে চারজন মারা গেছে।

আরও পড়ুন:  সিজারিয়ান অপারেশন করলেই বাচ্চা হবে প্রতিবন্ধী – বন্ধ হোক সিজারিয়ান অপারেশন

বর্তমানে পৃথিবীতে প্রতি বছর ১৬০০ কোটি সিরিঞ্জ ব্যবহার করা হয়।

সাধারণ সিরিঞ্জ একাধিকবার ব্যবহার করা সম্ভব। কিন্তু এটা ঠেকাতে এখন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাএক নতুন ধরণের সিরিঞ্জ চালু করার পরিকল্পনা করছে – যার সূঁচ এরকম হবে যা একবারের বেশি ব্যবহার করা যাবে না।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ইনজেকশন নিরাপত্তা সংক্রান্ত দলের প্রধান ড. সেলমা খামাসি বলছেন, এর ফলে প্রতি বছর যে ১৭ লাখ নতুন হেপাটাইটিস বি , তিন লাখ হেপাটাইটিস সি এবং ৩৫ হাজার এইচআইভি সংক্রমণ রোধ করা সম্ভব হবে।

তবে সমস্যা হল, এই নতুন ধরণের সিরিঞ্জের খরচ বেশি হবে।

আরও পড়ুন:  মানসিক চাপে ওজন বাড়ে

কিন্তু ডব্লিউএইচও বলছে, রোগীদের চিকিৎসার জন্য যে খরচ হয়, তার চাইতে এটা অনেক কম।

সংস্থার লক্ষ্য হলো, ২০২০ সালের মধ্যে এই ধরণের সিরিঞ্জ এর ব্যবহার ৯০ শতাংশ পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া। তবে সাধারণ সিরিঞ্জ ব্যবহার যে একেবারেই উঠে যাবে – এমনটা হয়তো সব ক্ষেত্রে হবে না।

  • 30
    Shares
Loading...