হিমালয় পর্বত দেখার জন্য পর্যটকদের ভীড় জমে পঞ্চগড় জেলায়!

হিমালয় পর্বত দেখার জন্য পর্যটকদের ভীড় জমে পঞ্চগড় জেলায়!
পড়া যাবে: < 1 minute

হিমালয় পর্বত দেখার জন্য পর্যটকদের ভীড় জমে পঞ্চগড় জেলায়!

পঞ্চগড় জেলা বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের রংপুর বিভাগের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল। এটি বাংলাদেশের সবচেয়ে উত্তরের জেলা। পঞ্চগড় জেলায় মোট পাঁচটি উপজেলা রয়েছে। যথা: আটোয়ারী উপজেলা, তেতুলিয়া উপজেলা, দেবীগঞ্জ উপজেলা, পঞ্চগড় সদর উপজেলা ও বোদা উপজেলা।

জেলাটির আয়তন মোট ১,৪০৪.৬২ বর্গকিমি এবং জেলার জনসংখ্যা মোট ১০,২৬,১৪১। আর জেলাটির জনঘনত্ব ৭৩০/বর্গকিমি৷ পঞ্চগড় জেলার সাক্ষরতার হার মোট ৩০.৬%৷ অন্যান্য জেলার তুলনায় পঞ্চগড় জেলার স্বাক্ষরতার হার অনেক কম। পঞ্চগড় জেলায় মোট ২২টি কলেজ ও প্রায় ১৮৬৫টি বিদ্যালয় রয়েছে। ১৯৪৭ সালে ভারত বিভাগের জন্য স্যার সিরিল রেডক্লিফের নির্ধারিত সীমানা অনুযায়ী পঞ্চগড় জেলার তিনদিকে প্রায় ১৮০ মাইল বা ২৮৮ কি.মি. জুড়ে ভারতের সীমান্ত অবস্থিত।

আরও পড়ুন:  একজন পারফেক্ট গৃহিণীর দৈনন্দিন রুটিন কেমন হওয়া উচিত? জেনে নিন সাজেশন

পঞ্চগড় জেলার উত্তরে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের দার্জিলিং জেলা, উত্তর-পশ্চিমে জলপাইগুড়ি ও কোচবিহার জেলা, দক্ষিণে ঠাকুরগাঁও ও দিনাজপুর জেলা, পশ্চিমে ভারতের পশ্চিম দিনাজপুর ও পূর্ণিয়া জেলা এবং পূর্বে নীলফামারী জেলা অবস্থিত। জেলায় ছোট-বড় মিলে অনেকগুলো নদী রয়েছে। পঞ্চগড়কে সম্পূর্ণভাবে নদী বেষ্টিত একটি জেলাও বলা যেতে পারে।

এ জেলায় সাহিত্য ও সংস্কৃতি চর্চার জন্য রয়েছে জেলা শিল্পকলা একাডেমি, জেলা শিশু একাডেমি, নজরুল পাঠাগার। বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম স্টেডিয়াম সহ প্রায় ৯৭ খেলাধুলা উপযোগী মাঠ যেমন রয়েছে। তেমনি সকল দর্শকের আকর্ষন নেয়ার জন্যে রয়েছে ডি.সি পার্ক, হিমালয় পার্ক, সীমান্ত ক্যান্টিন, ট্র্যাফিক পুলিশ ক্যান্টিন ইত্যাদি। জেলায় বেশ কিছু পিকনিক স্পট রয়েছে। এছাড়া এখানে কয়েকটি ঐতিহাসিক স্থান আছে। উল্লেখ্য যে প্রতি শীতে পর্যটকদের ভিড় জমে হিমালয় পর্বত দেখার জন্যে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলায়।

আরও পড়ুন:  জেনে নিন আম থেকে ফরমালিন ও অন্যান্য ক্ষতিকর কেমিক্যাল দূর করার উপায়

তথ্যঃ গুগল

বাংলা হেলথ কেয়ার /এসপি