মাগুরা জেলা সম্পর্কে পড়ুন 

বাগেরহাট জেলা সম্পর্কে পড়ুন 
পড়া যাবে: < 1 minute

মাগুরা জেলা সম্পর্কে পড়ুন 
ইয়াসিন প্রধান সাজিদ 
জুলাই ১২, ২০২০

মাগুরা জেলা বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের একটি প্রশাসনিক অঞ্চল। মাগুরা জেলা খুলনা বিভাগের একটি জেলা। রাজধানী ঢাকা থেকে মাগুরার দূরত্ব ১৭৬ কিলোমিটার। জেলাটিতে অনেকগুলো নদী রয়েছে। নদীগুলো হচ্ছে গড়াই নদী, নবগঙ্গা নদী, ফটকি নদী, হানু নদী, আলমখালি নদী, মধুমতি নদী, মুচিখালি নদী, মরাকুমার নদ, কুমার নদ, চিত্রা নদী, ভৈরব নদী, সিরাজপুর হাওর নদী, বেগবতী নদী।

কুমার নদী ও নবগঙ্গার তীরে অবস্থিত বর্তমান মাগুরা শহরে ছিল মগ জল দস্যুদের আখড়া। নদী পথে তারা বর্গীদের মতো দস্যুপনা করতো। তাদের নামেই মগরা থেকে মাগুরা হয়েছে।

আরও পড়ুন:  পার্লার, স্যালন নিরাপদ নয়, তাই চুলের যত্নে ঘরোয়া উপাদানেই বানিয়ে ফেলুন হেয়ার মাস্ক

মাগুরা জেলার আয়তন মোট ১,০৪৮.৬১ বর্গকিমি ,জনসংখ্যা মোট ৯,১৮,৪১৯ আর জনঘনত্ব ৮৮০/বর্গকিমি। ২০১১ সালের আদম শুমারি অনুযায়ী মাগুরা জেলার মোট জনসংখ্যা ৯ লক্ষ ১৮ হাজার ৪১৯ জন। এর মধ্যে পুরুষ: ৫০.৫৬%, মহিলা: ৪৯.৪৪%।

মাগুরা জেলায় ৪টি উপজেলা রয়েছে।মাগুরা জেলার সাক্ষরতার হার মোট ৫০.৬%। যেটি অন্যান্য জেলা থেকে তুলনামূলক অনেকটাই কম।

১০৪৮ বর্গ কিমি ক্ষেত্রফল বিশিষ্ট মাগুরা জেলা উত্তরে রাজবাড়ী জেলা, দক্ষিণে যশোর ও নড়াইল জেলা, পূর্বে ফরিদপুর জেলা এবং পশ্চিমে ঝিনাইদহ জেলা দ্বারা বেষ্টিত।

আকাশপথে যোগাযোগের কোনো মাধ্যম এখন পর্যন্ত মাগুরা জেলার নেই। এখানে কোন বিমানবন্দর না থাকায় সরাসরি আকাশপথে ভ্রমণ সম্ভব নয়।

আরও পড়ুন:  আসছে কোরবানি,জেনে নিন গরুর শরীরের কোন অংশের মাংস দিয়ে কী রান্না করবেন?

সড়কপথে যোগাযোগঃ রাজধানী শহরের সংগে সরাসরি বাস যোগাযোগ আছে। আন্তঃজেলা বাস যোগাযোগব্যবস্থা আছে। গাবতলী ও সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল থেকে মাগুরা জেলায় ভ্রমণের জন্য সরাসরি বাস পাওয়া যায়।

তথ্যঃ গুগল

লিখাঃ সাজিদ

বাংলা হেলথ কেয়ার /এসপি

  • 1
    Share