প্রচ্ছদ স্বাস্থ্য টিপস

*বিনা পয়সায় এলার্জি বিদায়*

259

পড়া যাবে: < 1 minute

*মানব’জীবনে এ’লার্জি কতোটা ভয়’ঙ্কর তা যিনি ভুক্ত’ভোগী শুধু তিনিই জা’নেন। এর উ’পশমের জন্য কতো’জন কতো কিছু’ই না করেন। তবুও সু’রাহা হয় না। কতো সু’স্বাদু খাবার চো’খের সামনে দেখে জিহ্বা’তে পানি আসলে’ও এ’লার্জি ভয়ে তা আর খা’ওয়া হয় না।*

*এ জন্য বছ’রের পর বছর ভুক্ত’ভোগিরা এ’সব খা’বার খাওয়া থেকে বি’রত থাকেন। ভোগেন পুষ্টিহীন’তায়। তবে এর জন্য আর চিন্তা না। এ’লার্জি আ’ক্রান্ত ব্যক্তি’রা সব চি’ন্তা মাথা থেকে ঝেড়ে ফে’লুন। এ’বার বি’না খ’রচে এলার্জি’কে গুড’বাই জা’নান আ’জীবনের জন্য। এজন্য আপ’নাকে যা করতে হবে*

*১ কেজি নিম পাতা ভালো করে রোদে শু’কিয়ে নি’ন। শু’কনো নিম পাতা পা’টায় পিষে গুঁড়ো করুন এবং তা ভা’লো করে পরি’স্কার পরি’চ্ছন্ন একটি কৌটায় ভরে রা’খুন। এবার ইসব’গুলের ভুষি কি’নুন।*

*এক চা চাম’চের ৩ ভাগের ১ ভাগ নিম’পাতার গুঁড়া এবং ১ চা চা’মচ ভুষি ১ গ্লাস পানি’তে আধা ঘ’ণ্টা ভিজিয়ে রাখুন। আধা ঘ’ণ্টা পর চা’মচ দিয়ে ভালো করে না’ড়ুন।*

*প্রতি’দিন স’কালে খালি পেটে, দু’পুরে ভরা পেটে এবং রাতে শো’য়ার আগে খেয়ে ফে’লুন। ২১ দিন এক’টানা খেতে হবে। কার্য’কারিতা শুরু হতে ১ মাস লেগে যেতে পারে। ইন’শাআল্লাহ ভালো হয়ে যাবে এবং এর’পর থেকে এ’লার্জির জন্য যা যা খেতে পার’তেন না*

*যেমন- হাঁসের ডিম, বে’গুন, গ’রুর মাংস, চিংড়ি, কচু, কচু’শাক, গা’ভীর দুধ, পুঁই’শাক, মিষ্টি কুমড়া’সহ অ’ন্যান্য খা’বার খান। দেখ’বেন কোনো স’মস্যা হচ্ছে না।*

বাংলা হেলথ কেয়ার /এসপি

  • 6
    Shares
Loading...