দৈনিক খবর

কুমিল্লার হয়ে বিপিএল মাতাবেন লিটন, মাশরাফির দলে মুশফিক-সাকিবের সঙ্গী রিয়াদ

গত এক বছর দুর্দান্ত সময় কাটানোর পরও লিটন কুমার দাশকে সরাসরি সাইনে দলে নেয়নি বিপিএলের সাত ফ্র্যাঞ্চাইজির কেউ। বিপিএলের নবম আসরের আজকের ড্রাফটের মূল আকর্ষণ ছিল তাকে ঘিরে। মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সঙ্গে ৮০ লাখ টাকা পারিশ্রমিকে ‘এ’ ক‌্যাটাগরিতে ছিলেন লিটন। প্রথম ডাকেই লিটন খুঁজে পান ঠিকানা।

এদিকে লটারিতে খেলোয়াড় ডাকের সুযোগ সবার আগে পায় অষ্টম আসরের চ‌্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। প্রথম সুযোগেই তারা লিটনকে দলে লুফে নেয়। দ্বিতীয় ডাকে সিলেট স্ট্রাইকার্স মুশফিকুর রহিমকে দলে নেয়। চট্টগ্রাম তিন নম্বরে খেলোয়াড় দলে নেওয়ার সুযোগ পায়। তারা ‘ডি’ ক‌্যাটাগরিতে থাকা পেসার মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরীকে দলে নেয়। গত আসরেও বাঁহাতি পেসার চট্টগ্রামে খেলেছিলেন।

ঢাকা ডমিনেটর্স চার নম্বরে খেলোয়াড় নেওয়ার সুযোগ পেয়ে নেয় মোহাম্মদ মিঠুনকে। এরপর রংপুর রাইডার্স শেখ মেহেদী হাসানকে, ফরচুন বরিশাল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এবং খুলনা টাইগার্স মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিনকে প্রথম রাউন্ডে দলে নেয়। দ্বিতীয় রাউন্ডে রিভার্স কলে শুরুতে খেলোয়াড় নেওয়ার সুযোগ পায় খুলনা। এবার তারা দলে নেয় ইয়াসির আলী চৌধুরীকে।

এরপর ধাপে ধাপে ফরচুন বরিশাল মেহেদী হাসান মিরাজকে, রংপুর রাইডার্স হাসান মাহমুদকে, ঢাকা ডমিনেটর্স সৌম‌্য সরকারকে, চট্টগ্রাম চ‌্যালেঞ্জার্স শুভাগত হোম চৌধুরীকে, সিলেট স্ট্রাইকার্স নাজমুল হোসেন শান্তকে এবং সবশেষ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স মোসাদ্দেক হোসেনকে দলে নেয়। ২০২৩ সালে বিপিএলের নবম আসর শুরু হবে ৫ জানুয়ারি থেকে। ৪৩ দিনের টুর্নামেন্ট চলবে ১৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

অষ্টম আসরে খেলা ফরচুন বরিশাল, চট্টগ্রাম চ‌্যালেঞ্জার্স, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স, খুলনা টাইগার্স এবারও অংশ নিচ্ছে। রংপুর রাইডার্স দুই আসর পর আবার ফিরেছে বিপিএলে। প্রথমবারের মতো অংশ নিচ্ছে ঢাকা ডমিনেটর্স ও সিলেট স্ট্রাইকার্স। স্থানীয় সাত ক্রিকেটারকে আগেভাগে দলে ভেড়ানোর সুযোগ পেয়েছিল ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো। সুযোগটি কাজে লাগিয়ে সাত ফ্র্যাঞ্চাইজি সাত ক্রিকেটারকে বেছে নেয়।

চট্টগ্রাম আফিফ হোসেনকে, কুমিল্লা মোস্তাফিজুর রহমানকে, ঢাকা তাসকিন আহমেদকে, বরিশাল সাকিব আল হাসানকে, খুলনা তামিম ইকবালকে, রংপুর কাজী নুরুল হাসান সোহান এবং সিলেট মাশরাফি বিন মুর্তজাকে সরাসরি সাইনে দলে নেয়। এর আগে প্রতিযোগিতার লোগো উন্মোচন করা হয়। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন নতুন লোগো উন্মোচন করেন। এবারও খুব আকর্ষণীয় কিছু করতে পারেনি আয়োজকরা।

Related Articles

Back to top button