কাঁধ ব্যথা দূর করে ফিজিওথেরাপি এক্সারসাইজ, পদ্ধতি জানতে নিচে ক্লিক করুন

কাঁধ ব্যথা দূর করে ফিজিওথেরাপি এক্সারসাইজ, পদ্ধতি জানতে নিচে ক্লিক করুন
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

কাঁধের অস্থিসন্ধি মানবদেহের অত্যন্ত জটিল একটি অস্থিসন্ধি। প্রতিদিন একই রকম কাজ বার বার করাতে কাঁধের মাংসপেশিতে ব্যথা হয়। কাঁধের রোটেটর কাফ মাংসপেশিগুলোর মধ্যে সুপ্রাস্পাইনাটাস টেন্ডনে প্রদাহ হলে সেটাকে সুপ্রাস্পাইনাটাস টেন্ডিনাইটিস বলা হয়। সুপ্রাস্পাইনাটাস টেন্ডনে সৃষ্ট ক্ষত থেকেই মূলত সুপ্রাস্পাইনাটাস টেন্ডিনাইটিস এর সৃষ্টি এবং এর উৎপত্তিস্থল হল স্কেপুলার এক্রমিওন প্রসেসের নিচে এবং কাঁধের বার্সার উপরে। প্রণালিবদ্ধ ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা না পাওয়ার ফলে টেন্ডনের কোলাজেন টিস্যু চিকন হয়ে যায় এবং বারবার একই কাজ করার কারণে পুনরায় টেন্ডনে দীর্ঘস্থায়ী যে ক্ষত সৃষ্টি হয় যাকে বলা হয় টেনডিনোসিস।
পুলি এক্সারসাইজ

যেসব রোগী কাঁধে চোট পেয়েছিলেন কিন্তু সঠিক চিকিৎসা পাননি, তাদের পরবর্তী সময়ে এ রোগ হতে পারে। যারা লেখালেখির কাজ করেন যেমন শিক্ষক, ডাক্তার বা যারা কম্পিউটারে টাইপের কাজ করেন তাদের সুপ্রাস্পাইনাটাস টেন্ডিনাইটিস হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। এই রোগটি যেকোনো বয়সে হতে পারে।একজন ফিজিওথেরাপিস্ট রোগীর শারীরিক পরীক্ষার দ্বারা সুপ্রাস্পাইনাটাস টেন্ডিনাইটিস নির্ণয় করেন। এজন্য রেসিস্টেড সোল্ডার এবডাকশন বা বাধার বিপরীতে বাহুকে বাইরের দিকে তুলতে বলা হয়, ১৫ ডিগ্রি রেঞ্জে ব্যথা অনুভূত হলে টেস্ট পজিটিভ হয়। এমআরআই করেও টেন্ডিনাইটিস আছে কিনা তা নিশ্চিত হওয়া যায়।
রোগের লক্ষণ হচ্ছে হঠাৎ করে কাঁধে প্রচণ্ড ব্যথা অনুভূত হবে ও ব্যথা কাঁধ থেকে আস্তে আস্তে বাহু, হাত এবং কবজি পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়তে পারে। হাত মাথার উপর তুলতে গেলে কাঁধে ব্যথা অনুভূত হবে। ‘পেইনফুল আর্ক’ থাকবে অর্থাৎ বাইরের দিকে হাত তুলতে গেলে ৬০ থেকে ১২০ ডিগ্রির সীমার মাঝে ব্যথা থাকবে আবার ১২০ ডিগ্রির উপর আস্তে আস্তে ব্যথা কমে আসবে। দৈনন্দিন জীবনের কাজকর্ম যেমন বোতলের মুখ খোলা, সোফার কুশন তোলার ক্ষেত্রে মনে হবে যেন কাঁধের ব্যথা বেড়ে যাচ্ছে এবং কাঁধে কোন শক্তি নেই। রাতে ব্যথার পরিমাণ এত বাড়বে যে রোগীর ঘুম ভেঙে যাবে।
রোগীর সুপ্রাস্পাইনাটাস টেন্ডনে ডিটিএফএম চিকিৎসা
একজন রোগী ঘরে বসেই করতে পারবেন কাঁধের থেরাপিউটিক এক্সারসাইজগুলো। এগুলোর মধ্যে ক্রস বডি স্ট্রেচিং, আঙুল দিয়ে দেয়াল স্পর্শ করে উপরে উঠানামা, পেন্ডুলাম এক্সারসাইজ এবং ট্র্যাপ ফ্লাই গুরুত্বপূর্ণ। প্রায় ৩ সপ্তাহ ধরে একজন দক্ষ ফিজিওথেরাপিস্ট সপ্তাহে দুই থেকে তিন সেশনে সুপ্রাস্পাইনাটাস এর টেনডনে একটানা ডিপ ট্রান্সভার্স ফ্রিকশন ম্যাসাজ (ডিটিএফএম) করে থাকেন, যতক্ষণ না পর্যন্ত সেখানে অবশ অনুভূতি না আসে। যেহেতু সুপ্রাস্পাইনাটাস টেন্ডিনাইটিসের ৩ টি পর্যায় রয়েছে তাই এর ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা দীর্ঘমেয়াদি হয়ে থাকে।
কিন্তু সুপ্রাস্পাইনাটাস টেন্ডিনাইটিসের ক্ষেত্রে পুরোপুরি ভালো হওয়ার মূল শর্ত হলো কাঁধের পেশিকে বিশ্রাম দেওয়া। লেখালেখি ও যেকোনো ওজন তোলা থেকে বিরত থাকা, ফিজিওথেরাপিস্টের পরামর্শ মতো চলা এবং দৈনিক পেশির সংকোচন, প্রসারণ করা, ঐচ্ছিক নিয়মে বাহুকে তোলা, স্ক্যাপুলার স্ট্রেচিং এক্সারসাইজ, মাংসপেশির অস্বাভাবিক সংকোচন কমাতে মায়োফেসিয়াল রিলিজ করা জরুরি।
৫০০০+ মজদার রেসিপির জন্য Google Play store থেকে Install করুন “Bangla Recipes” মোবাইল app…. 🙂.মোবাইল app Download Link >>> https://bit.ly/2YsK4MO

আরও পড়ুন:  প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় অভিনেত্রীকে কুপিয়েছেন এক প্রযোজক

বাংলা হেলথ কেয়ার /এসপি