প্রচ্ছদ Countrywide

এবার সেই দিনের পুরো ঘটনা খুলে বললেন জিতুর বাবা, পুলিশকে জানাতে বারণ করেন উৎপলকে

16

সম্প্রতি গত কয়েকদিন আগেই রাজধানী ঢাকায় উৎপল কুমার সরকার নামে এক শিক্ষককে ক্রিকেট খেলার স্ট্যাম্প দিয়ে হত্যার ঘটনা দায়ের করা মামলায় অন্যতম প্রধান আসামি শিক্ষার্থী আশরাফুল আহসান জিতুসহ তার বাবা উজ্জ্বলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। আর এরই মধ্যে আদালতে নিজেদের জবানবন্দিতে এ ঘটনার দায় স্বীকার করেছেন তারা।

মঙ্গলবার ঢাকার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাজী আশরাফুজ্জামানের আদালতে তার জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। জবানবন্দিতে তিনি শিক্ষক উৎপলের মৃত্যুর জন্য তার ছেলে জিতুকে দায়ী করেন। ঘটনার পর শিক্ষকদের স্কুলে যেতে ও থানায় অভিযোগ করতে নিষেধ করেন তিনি।

আদালত ও মামলা সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
রিমান্ড শেষে উজ্জ্বলকে আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ সময় তিনি স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে রাজি হন। এরপর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক এমদাদুল হক ১৬৪ ধারায় তার জবানবন্দি রেকর্ড করার আবেদন করেন। আদালত কি আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তার বক্তব্য রেকর্ড করেছেন?

জবানবন্দিতে জিতুর বাবা উজ্জ্বল বলেন, “শিক্ষক উৎপল আমার কাছে জিতুর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন। আমি শিক্ষক উৎপলকে বলেছি, আমি বিষয়টি দেখব।ঘটনার দিন আমি স্কুলে গিয়ে বলেছিলাম, থানা-পুলিশ না করতে। পরে আমি জিতুকে আমার চান্দুরার বাড়িতে লুকিয়ে রাখি। পুলিশ অভিযান চালালে জিতুকে পাবনায় পাঠিয়েছিলাম। আমি কুষ্টিয়ায় মুজাহিদদের বাড়িতে গিয়েছিলাম। কুষ্টিয়া থেকে পুলিশ আমাকে গ্রেফতার করেছে। জিতুই শিক্ষক উৎপলকে শেষ করে দিয়েছে।’

এর আগে গত ২৭ জুন রাজধানী ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ শিক্ষক উৎপল কুমার সরকার। তার মৃত্যুর খবরে পরিবার-পরিজনদের মাঝে নেমে আসে শোকের কালো ছায়।